আজ বৃহস্পতিবার রাত ১২:৪০, ২১শে নভেম্বর, ২০১৮ ইং, ৮ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ, ১৩ই রবিউল-আউয়াল, ১৪৪০ হিজরী

আগামী ১১ নভেম্বর এক নতুন চমক দেখবে ক্রিকেটবিশ্ব

নিউজ ডেস্ক | জাগো বার্তা .কম
আপডেট : নভেম্বর ৯, ২০১৮ , ১১:০৯ পূর্বাহ্ণ
ক্যাটাগরি : খেলাধুলা
পোস্টটি শেয়ার করুন

জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে দুই ম্যাচ টেস্ট সিরিজের প্রথম ম্যাচে বাংলাদেশ হেরেছে ১৫১ রানে। ইনজুরির কারণে বাংলাদেশের অন্যতম সেরা দুই ক্রিকেটার তামিম ইকবাল ও সাকিব আল হাসান জিম্বাবুয়ে সিরিজে নেই। ওয়ানডে সিরিজে ইমরুল কায়েস, সৌম্য সরকার কিংবা লিটন দাসের ব্যাটে তাদের অনুপস্থিতি টের পাওয়া না গেলেও টেস্টে পাওয়া গেছে। চোটে পড়ে দলের বাইরে থাকা তামিমের আশা, বাংলাদেশ দল ঘুরে দাঁড়াবে ঢাকা টেস্টে।

দলের সেরা ওপেনার তামিম না থাকার পরও জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজ বেশ ভালোভাবেই জিতেছে বাংলাদেশ। কিন্তু সাদা পোশাকে তার অভাব স্পষ্ট হয়েছে বারবার। জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ১৫১ রানের হারে টেস্ট সিরিজে পিছিয়ে বাংলাদেশ। ঢাকায় শেষ টেস্ট শুরু হবে ১১ নভেম্বর।নিজে খেলতে না পারলেও যারা দলে আছেন তারা দ্বিতীয় টেস্টে ঘুরে দাঁড়াবেন বলে আশা করছেন তামিম। তিনি বলেন,

‘তারা (বাংলাদেশ টেস্ট দল) ১০০ ভাগ ঘুরে দাঁড়াবে। দল এবং আমি মনে করি তারা সেরা খেলা দেখাতে পারেনি। তারা যা খেলেছে তার থেকে ভালো দল আমরা। গেল পাঁচ বছরের থেকে টেস্টে এখন অনেক ভালো দল আমরা। তবে আমরা টেস্টে যেমন উন্নতি আশা করেছিলাম যেভাবে তা এগোচ্ছে না।’

‘একটা সময় আসবে যখন আমরা ঘুরে দাঁড়াব। এর চেয়ে আমরা ভালো খেলব। মানুষ সমালোচনা করবে, পেছনে কথা বলবে। তবে আমরা ১৫-২০ জনের একটি দল বিশ্বাসী, এ বিষয়টি ইতিবাচকভাবে নিতে পারব। সামনের দিকে এগিয়ে যাব। খুব ভালো করে জানি যে আমরা যখন আবার একটি সিরিজে ভালো খেলব, তখন সবাই আবার আমাদের বাহবা দেবে। এটাই পেশাদার ক্রিকেটের একটি অংশ।

’তামিম কতটা হতাশ হয়েছেন সিলেট টেস্টে বাংলাদেশ বাজেভাবে হারায়? আজ মিরপুরে অনুশীলনের পর সংবাদমাধ্যমকে বললেন,‘কখনোই ভাবিনি যে জিম্বাবুয়ের কাছে হারব।সবার প্রত্যাশা ছিল টেস্টটা জিতব। যখন এমন কিছু হয় তখন মানুষ অনেক কষ্ট পায়। হতাশ হয়ে পড়ে। রিয়াদ ভাইয়ের মন্তব্যটা সম্ভবত হতাশা থেকেই এসেছে। এটাই আমি বিশ্বাস করি। অধিনায়ক হিসেবে অবশ্যই ভিন্ন কিছু করতে চাইবেন তিনি।

সাধারণত মানুষ হতাশা থেকে অনেক কিছু বলে থাকে। মনে করি এখানেও তা-ই হয়েছে। সবাই জানি ক্রিকেটাররা কতটা কষ্ট করছে টেস্টে ভালো করতে। এটাই হলো মূল ক্রিকেট। এত কষ্ট করার পরও যখন ভালো ফল পাচ্ছি না, তখন সেটি অনেক হতাশার।’

চট্টগ্রামে দুটি ওয়ানডে ও সিলেটে দুই ম্যাচ সিরিজের প্রথম টেস্ট ম্যাচ শেষে বাংলাদেশ ও জিম্বাবুয়ের মধ্যকার সিরিজ ফিরছে ঢাকায়। আগামী ১১-১৫ নভেম্বর মিরপুর শের-ই-বাংলা স্টেডিয়ামে গড়াবে সিরিজের দ্বিতীয় ও শেষ টেস্ট ম্যাচটি।