আজ বৃহস্পতিবার রাত ১২:৫৪, ২১শে নভেম্বর, ২০১৮ ইং, ৮ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ, ১৩ই রবিউল-আউয়াল, ১৪৪০ হিজরী

রস টেলরের শাস্তি চায় পাকিস্তান

নিউজ ডেস্ক | জাগো বার্তা .কম
আপডেট : নভেম্বর ৮, ২০১৮ , ১২:২৯ অপরাহ্ণ
ক্যাটাগরি : খেলাধুলা
পোস্টটি শেয়ার করুন

খেলা চলাকালে বোলারের বোলিং অ্যাকশন নিয়ে প্রশ্ন তোলায় নিউজিল্যান্ডের ক্রিকেটার রস টেলরের শাস্তি দাবি করেছে পাকিস্তান ক্রিকেট দল।
রস টেলরের শাস্তি চায় পাকিস্তান

বুধবার (৮ নভেম্বর) তিন ম্যাচ ওয়ানডে সিরিজের প্রথম ম্যাচে স্বাগতিক পাকিস্তানের মুখোমুখি হয়েছিল নিউজিল্যান্ড। টস জিতে ব্যাট করতে নেমে কিউই ব্যাটসম্যান টেলর বিতর্কের জন্ম দেন।

টেলর যে বোলারের বোলিং অ্যাকশন নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন তিনি মোহাম্মদ হাফিজ। পাকিস্তানের এই অলরাউন্ডার অবৈধ বোলিং অ্যাকশনের দায়ে ইতিপূর্বে চার বার আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে বল করার উপর নিষেধাজ্ঞা পেয়েছিলেন।

হাফিজ ম্যাচে ৬ ওভার বল করেন। নিজের প্রথম ওভার করতে এলে ঐ ওভারেই টেলর ইশারা দিয়ে আম্পায়ারের প্রতি হাফিজের বোলিং অ্যাকশন নিয়ে সন্দেহ প্রকাশ করেন। চাক করছেন পাকিস্তানের স্পিনার- এমনটাই ছিল টেলরের বার্তা।

এমন ঘটনায় মাঠেই প্রতিবাদ জানায় পাকিস্তান। পাকিস্তান অধিনায়ক সরফরাজ আহমেদ বেশ কিছুক্ষণ আম্পায়ারের সাথে এ নিয়ে কথা বলার পর ম্যাচ শুরু হয় আবারও। ম্যাচ হারার গ্লানি নিয়ে মাঠ ছাড়ার পরও বিষয়টি ভুলেনি পাকিস্তান।

ম্যাচ শেষে সংবাদ সম্মেলনে এ নিয়ে মুখ খোলেন পাকিস্তান দলের দলপতি সরফরাজ। টেলরের এমন আচরণ মোটেও ঠিক হয়নি জানিয়ে তিনি বলেন, ‘রস টেলরের অঙ্গভঙ্গি ছিল ভুল। এটা তার কাজ নয়। টেলিভিশনের সামনেই তিনি যেভাবে অ্যাকশনটা দেখালেন, সেটা খুবই মানহানিকর ছিল। আমি মনে করি না এটা তার কাজ, তার কাজ হলো ব্যাট করা। ব্যাটিংয়ে মনোযোগ দেয়াটাই তার জন্য সঠিক ছিল।’

হাফিজের বোলিং অ্যাকশন যদি আদৌ অবৈধ হয়েও থাকে, তবুও টেলরের মাঠে বসেই এ নিয়ে অভিযোগ তোলা বেমানান ও অপমানজনক বলে মনে করছে পাকিস্তান। আর তাই ম্যাচ রেফারির কাছে আনুষ্ঠানিকভাবে অভিযোগ করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে পাকিস্তানের টিম ম্যানেজমেন্ট। ম্যাচ রেফারি অভিযোগ আমলে নিলে হয়ত শাস্তি পেতে হতে পারে টেলরকে।