আজ মঙ্গলবার রাত ১০:৪০, ২০শে নভেম্বর, ২০১৮ ইং, ৬ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ, ১২ই রবিউল-আউয়াল, ১৪৪০ হিজরী

আত্মসমর্পণকারী দুই মাওবাদীর বিয়ে দিল পুলিশ

নিউজ ডেস্ক | জাগো বার্তা .কম
আপডেট : মে ১০, ২০১৮ , ৮:১২ পূর্বাহ্ণ
ক্যাটাগরি : আর্ন্তজাতিক
পোস্টটি শেয়ার করুন

জঙ্গলে থাকার সময় শুরু প্রেমের সম্পর্ক। সেই সম্পর্ককে সামাজিক স্বীকৃতি দেওয়ার ব্যবস্থা করল পুলিশ। আর যাদের মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক তারা দু’জনই মাওবাদী। আত্মসমর্পণকারী দুই মাওবাদীর বিয়ে দিয়েছে পুলিশ। বিয়ে উপলক্ষে প্রীতিভোজের ব্যবস্থাও ছিল। ভারতের মেদিনীপুর জেলা পুলিশ এ বিয়ের আয়াজন করে।

পাত্র শালবনির বীরভানপুরের বাসিন্দা দিলীপ মাহাত (৩১) ও পাত্রী বেলপাহাড়ির আদনি গ্রামের বাসিন্দা সুলেখা মাহাত (২৮)। কয়েক বছর ধরে তারা দু’জনই মাওবাদী স্কয়্যাডের সদস্য ছিলেন। এ সময় তাদের মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। পরবর্তীতে আত্মসমর্পণ করেন তারা। তাদের মধ্যে সম্পর্ক রয়েছে জানার পর দু’জনের বিয়ে দেওয়ার উদ্যোগ নেন পুলিশ সুপার অলোক রাজোরিয়া। গতকাল (৯ মে) পশ্চিম মেদিনীপুরের শালবনি থানার কর্ণগড় মহামায়া মন্দিরে দুই পরিবারের উপস্থিতিতে চারহাত এক হয়।

আত্মসমর্পণের পর তারা এখন জেলা পুলিশ লাইনে কর্মরত।

পুলিশ সুপার বলেন, জঙ্গলে থাকাকালীন ওদের মধ্যে ভালোবাসার সম্পর্ক তৈরি হয়েছিল। তারপর ওরা আত্মসমর্পণ করে। দু’জনেরই পুলিশ লাইনে পোস্টিং ছিল। তারপর আমরা জানতে পারি, ওদের মধ্যে ভালোবাসার সম্পর্ক আছে। তখন আমরা ওদের বিয়ে দেওয়ার ব্যবস্থা করি। সেইমতো ওদের পরিবারের সদস্যদের বিষয়টি জানাই। তারপর আজ বৃহস্পতিবার মন্দিরে দু’জনের বিয়ে হয়।’