আজ মঙ্গলবার রাত ৯:৪৬, ২০শে নভেম্বর, ২০১৮ ইং, ৬ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ, ১২ই রবিউল-আউয়াল, ১৪৪০ হিজরী

১১ স্বামী থাকার অপরাধে পাথর ছুঁড়ে হত্যা

নিউজ ডেস্ক | জাগো বার্তা .কম
আপডেট : মে ১০, ২০১৮ , ৪:৫৫ পূর্বাহ্ণ
ক্যাটাগরি : আর্ন্তজাতিক
পোস্টটি শেয়ার করুন

কাধিক স্বামী থাকার অপরাধে সোমালিয়ার এক নারীকে পাথর ছুঁড়ে হত্যা করেছে দেশটির জঙ্গি সংগঠন আল-শাবাব।

৯ ম, বুধবার বার্তা সংস্থা রয়টার্সের এক প্রতিবেদনে এ ঘটনার কথা জানানো হয়।

সোমালিয়ার সাবলাল শহরের বাসিন্দা শুকরি আবদুল্লাহি ওয়ারসামে নামের ওই নারীর বয়স ৩০। একই সঙ্গে ১১ জন স্বামী থাকার অপরাধে তাকে দোষী সাব্যস্ত করে পূর্ব আফ্রিকার জঙ্গি সংগঠন আল-শাবাবের তৈরি আদালত।

ওই এলাকার আল-শাবাবের গভর্নর মোহাম্মদ আবু উসামা রয়টার্সকে বলেন, শুকরি আবদুল্লাহি এবং তার আইনগত স্বামীসহ নয়জন পুরুষকে ওই আদালতে আনা হয়, প্রত্যেকেই দাবি করেন শুকরি তার স্ত্রী। এরপর শুকরিকে গলা পর্যন্ত মাটিতে পুঁতে পাথর ছুঁড়ে হত্যা করা হয়।

আল-শাবাব সংগঠনটির পুরো নাম হরকত আল-শাবাব আল-মুজাহিদিন। নিজেদের নিয়ন্ত্রিত এলাকায় কঠোর ইসলামি শরিয়া আইন প্রয়োগ করে তারা। সোমালিয়ার একটি বড় অংশ নিয়ন্ত্রণ করে আল-শাবাব। সরকারকে ক্ষমতাচ্যুত করার উদ্দেশ্যে মোগাদিসুতে অনেক সময়েই হামলা চালায় এই সংগঠনটি।

শরিয়া মোতাবেক কঠিন শাস্তি দেবার প্রচলন রয়েছে আল-শাবাবের। চৌর্যবৃত্তির অপরাধে হাত কেটে নেওয়া এবং বিবাহবহির্ভূত অনৈতিক আচরণের দায়ে পাথর ছুঁড়ে মৃত্যুদণ্ড দেওয়ার কাজ করে থাকে তাদের সদস্যরা।